Home / পার্বত্য চট্টগ্রাম / নিজ জাতীর মেয়েরাও নিরাপদ না ইউপিডিএফের কাছে

নিজ জাতীর মেয়েরাও নিরাপদ না ইউপিডিএফের কাছে

 

 

ডেস্কঃ 

ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সন্ত্রাসী কর্তৃক নিজ জাতির মেয়েদের অপহরণ করা এবং যৌণ নির্যাতন করা নতুন কিছু নয়। এর আগেও তারা বেশ কয়েকবার এমনটা ঘটিয়েছে। কয়েকটা উদাহরণ তুলে ধরা হলোঃ

১। ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সাথে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনায় অস্বীকৃতি জানানোর কারণে সন্ত্রাসীরা ৪ জুলাই ২০১৭ তারিখে রাঙামাটির নানিয়ারচরের লম্বাছড়ি থেকে মদন চাকমা নামে একজনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের আস্তানা থেকে কৌশলে মদন চাকমা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলে সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মদন চাকমার নিজ বাড়ি থেকে তার স্ত্রী শুবল পুরি চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ শুবলপুরি চাকমাকে অপহরণ করে যৌন কাজে ব্যবহারের জন্য আটকে রাখে। পরে মদন চাকমার অভিযোগ ও তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে নিরাপত্তা বাহিনী। এই ঘটনায় জড়িত থাকায় অমরেশ চাকমা নামে একজন গ্রেফতার হয়।

২। গত ২০১৬ সালে ১৮ই নভেম্বর রাঙামাটি জেলার নানিয়ারচর উপজেলার নানাপুরণ গ্রামে নিজ বাড়ী থেকে অস্ত্রের মুখে জোসনা চাকমাকে তুলে নিয়ে যায় ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ সমর্থীত সংগঠন যুব পরিষদ কর্মীরা। গলায় ও পায়ে শিকল পরিয়ে দীর্ঘ ২মাস নির্যাতন করা হয় তাকে। পরে নিরাপত্তা বাহিনী তাকে উদ্ধার করে। রাঙামাটি প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে অপহৃত জোছনা চাকমা ও তার স্বামী অপু চন্দ্র সিংহ এসব নির্যাতনের বর্ণনা দেন।

৩। রাঙামাটির সদর উপজেলা থেকে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ কর্তৃক অপহৃত মিতালী চাকমাকে প্রায় ২ মাস পরে উদ্ধার করে যৌথবাহিনী। রাঙামাটি সদরের সাপছড়ি ইউনিয়নের বোধিপুর নিজ বাড়ি থেকে মিতালী চাকমাকে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের কর্মীরা অপহরণ করে।

৪। গত ১ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা-বাঘাইহাট সড়কের শুকনাছড়ি এলাকা থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্রী রিমি চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিলো ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সন্ত্রাসীরা। অপহরণের পর এই ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক অভিযানে নামে বাঘাইহাট ও দিঘীনালার সেনাবাহিনীর নেতৃত্বাধীন যৌথ বাহিনীর সদস্যরা। এসময় সেনাবাহিনীর ব্যাপক উপস্থিতির কারণে সন্ত্রাসীরা কোণঠাসা হয়ে পড়লে এক পর্যায়ে রাত দশটার দিকে শুকনাছড়িতে স্নেহ কুমার চাকমার বাড়ির কাছে উক্ত শিক্ষার্থী রিমি চাকমাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সন্ত্রাসীরা।

ছবিঃ১- ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ কর্তৃক অপহৃত শুবল পুরি চাকমা।
ছবিঃ২- ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ কর্তৃক অপহৃত জোসনা চাকমা ও তার স্বামী অপু চন্দ্র সিংহ।
ছবিঃ৩- ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ কর্তৃক অপহৃত মিতালী চাকমা।
ছবিঃ৪- ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ কর্তৃক অপহৃত রিমি চাকমা।

 

#ফেসবুক থেকে নেয়া

শেয়ার করুন

About admin

01580-242555

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*